সরকারে ধস: জন নিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নূরুলের সপরিবারে পলায়ন!

বিরোধী দল ধরপাকড়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের (বর্তমানে জন নিরাপত্তা বিভাগের) অতিরিক্ত সচিব নূরুল ইসলামের সপরিবারে পলায়ন।

গতকাল শুক্রবার সকাল ৬ টায় বাংলাদেশ বিমান যোগে স্ত্রী ফিরোজা ও দুই পুত্র  অরন্য, অর্নব, এবং কন্যা অরনীকে নিয়ে জার্মানীর উদ্দেশ্যে দেশ ছেড়েছেন নুরুল ইসলাম। আপাতত দশ দিনের সরকারী সফরের কথা বলা হলেও দেশের পরিস্থিতি বুঝে ফেরা বা না ফেরার সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানিয়েছেন তার বন্ধু প্রমথ রায়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান রাজনৈতিক টালমাটালের সময় দেশের থাকা নিরাপদ মনে করছেন না অতিরিক্ত সচিব নূরুল ইসলাম। বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা কৃষিবিদ নূরুল কৃষি কলেজে পড়াকালে ছাত্রলীগের কেবিনেটে ছিলেন। বাহাউদ্দিন নাসিমের শিষ্য হিসাবে পরিচিতি পান। বিএনপির প্রথম আমলে ঘাপটি মেরে জান বাঁচিয়ে চললেও ৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরে মৎস্য প্রতিমন্ত্রী সতীশ চন্দ্রের ব্যক্তিগত সচিব হিসাবে আমলাতন্ত্রে প্রভাব ছড়াতে থাকেন। ২০০৯ সালে আ’লীগের ২য় দফার সরকারে গণপুর্তমন্ত্রী আব্দুল মান্নানের ব্যক্তিগত সচিবের পদে কাজ করেন পুরো এক টার্ম। এই সময়ে রাজউক এবং পুর্ত মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন সেক্টর থেকে নুরুলের টাকা বানানোর রাস্তা খুলে যায়। এরপরে চার বছর গাজিপুরের জেলা প্রশাসক থেকে শত শত কোটি টাকার সম্পদ গড়েন। ২০১৫ সাল থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পুলিশ অধিশাখার জয়েন্ট সেক্রেটারীর পরে ২০১৭ সাল থেকে জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব পদে উন্নীত হন। মূলত, তার এখান থেকে বিরোধী দল ধরপাকড়ের নির্দেশনা যায় পুলিশ র‌্যাবে।

দিনাজপুর-২ থেকে ভবিষ্যতে আওয়ামীলীগ থেকে ভোট করার ইচ্ছা অাছে নুরুল। এলক্ষে এলাকায় গণসংযোগও চালিয়েছেন, যদিও এখানে প্রভাবশালী খালিদ মাহমুদ এবং সতীশ বাবুও আছেন এই আসনে। তবে এখন যে দুঃসময় তাতে আগে বাঁচতে হবে, তাই আপাতত সপরিবারে বিদেশে চলে যাওয়া।

Facebook Comments
Content Protection by DMCA.com

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.