ঐক্যের পথে ২০ দলীয় জোটের বড় অগ্রগতি: যেকোনো মূল্যে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের সিদ্ধান্ত!

যেকোনো মূল্যে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠনে প্রস্তুত ২০ দলীয় জোট। টানা একযুগ ধরে রাজপথে থাকা বিরোধী এই জোট আজকের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়। সন্ধ্যায় শুরু হওয়া ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক আজ রাত সোয়া আটটায় শেষ হয়। এর আগে রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠকটি শুরু হয়।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ২০ দলের সমন্বয়কারী নজরুল ইসলাম খান।

বৈঠক শেষে ব্রিফিং করে ২০ দলের সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান জানান, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সব গণতন্ত্রকামী দল ও সংগঠনের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বৃহত্তর ঐক্য গঠনে একমত হয়েছে ২০ দল। এসময় জামায়াতে ইসলামীসহ ২০ দলের শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, দেশ, গণতন্ত্র, মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠনের বিষয়ে সম্মত ২০ দল। তিনি বলেন, ২০ দল সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠনে সম্মত হয়েছে। খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে জাতীয় ঐক্যের যে কথা বলেছেন তাতেও সমর্থন জানিয়েছে।

বৈঠকের পর শীর্ষনিউজের সঙ্গে আলাপকালে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি বাংলাদেশ ন্যাপ এর মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া জানান, বৈঠকে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। এক্ষেত্রে ২০ দলের পক্ষ থেকে ঐক্য প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে বিএনপি অন্য দলগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও তাঁর মুক্তির দাবিতে ২০ দলীয় জোট মাঠে থাকবে বলে সিদ্ধান্ত হয়।

জোটের শরীক জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালিম, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল ( অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক, জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিভ রহমান পার্থ, এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমদ, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, এনডিপির চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্তাজা, বাংলাদেশ ন্যাপ এর মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, মুসলিম লীগের সভাপতি এএইচ এম কামরুজ্জামান, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব আহমদ আব্দুল কাদের, জাগপার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, মহাসচিব খন্দকার লুৎফর রহমান, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের মহাসচিব নূর হোসাইন কাসেমী, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মহিউদ্দিন ইকরাম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাঈদ আহমদ, পিপলস লীগের মহাসচিব সৈয়দ মাহবুব হোসেন, ডেমোক্রটিক লীগের মহাসচিব সাইফুদ্দিন মনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

/শীর্ষনিউজ

Facebook Comments

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.