ইসলামী ব্যাংক হত্যা!

এক সময় বাংলাদেশের ১ নম্বর বেসরকারী ব্যাংক ছিল ইসলামী ব্যাংক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক প্রাচীন ফোর্বস ম্যাগাজিন তাদের জুলাই ২০১৬ সংখ্যায় বলে, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের বৃহত্তম এবং সবচেয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান। ১৯৮৩ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে প্রতি পাঁচ বছরে এর আমানত তিনগুণ হারে বৃদ্ধি পায়, ২০১৬ সালে ব্যাংকটির গ্রাহক সংখ্যা ১ কোটি ৭ লাখের অধিক। বৈদেশিক রেমিটেন্সের ২৭ শতাংশ এবং দেশের এসএমই খাতের ২৩ শতাংশ এককভাবে পরিচালনা করত ইসলামী ব্যাংক। আইডিবি সহ বিদেশী বিনিয়োগ ছিল ৬৩.০৯%। তখন ব্যাংকটির সম্পদের পরিমান ছিল ৯.৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।
ব্যাংকটির উপর চোখ পড়ে অবৈধ আ’লীগ সরকারের। জামাত-শিবির অযুহাত দেখিয়ে সেই ব্যাংক দখল করে হাসিনার নির্দেশে মাল মুহিত সালমান রহমান গং।
ব্যাংকের চেয়ারম্যান এমডি ও পরিচালকদের ডিজিএফআইতে ডেকে নিয়ে হুমকি দিয়ে রিজাইন করানো হলো।
এক রিটায়ার্ড অতিরিক্ত সচিব আরাস্তু খানকে বসানো হলো চেয়ারম্যান, পরিচালক করা হলো মেয়েদের বলডান্স খ্যাত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজি সামীম আফজালকে!
তন্ন তন্ন করে ব্যাংকটি খুঁকে জামায়াত শিবিরে অর্থায়ন খুঁজে পেলো না।
ব্যাংকটির মালিকানা থেকে তাড়িয়ে দেয়া হলো আইডিবিকে। ঐসব শেয়ার দখল করে এস আলম গ্রুপ সহ আরও অনেকে।
ব্যাংকটিতে শর্টকাট ঢুকানো হলো কয়েক’শ নিজেদের লোক।
আরাস্তু ঘোষণা করলো, ইসলামিক ব্যাংকে মহিলা এবং হিন্দুদের ঢোকানো হবে।
এরপর বছর না ঘুরতেই আরাস্তু আউট। লুটপাট শেষ করা হয়েছে।
প্রায় ৮০ হাজার কোটি টাকার ব্যাংকটির এখন নগদ টাকা নাই।
জনপ্রিয় সেবা এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের আউটলেট দেওয়ার কার্যক্রমও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ব্যাংকটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের মধ্যে এখনো ‘ছাঁটাই’ আতঙ্ক কাজ করছে।
বাংলাদেশ ব্যাংক গতকাল রবিবার ইনলামী ব্যাংকের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ সুইচ বন্ধ করে দিয়ে বিনিয়োগ বন্ধ করা হয়েছে। ফলে দেশের কোনো শাখা থেকে ঋণ দিতে পারেনি। এ ঘটনা দেশে নজিরবিহীন।
ব্যাংকটির বিনিয়োগ বন্ধ। আমানতকারীরা আমানক তুলে নিয়ে যাবে খুব দ্রুতই। ফলে ব্যাংকটির মৃত্যু এখন খুব নিকটবর্তী।
 
এভাবেই দেশের ১ নম্বর ব্যাংকটি ধংস করলো শেখ হাসিনা এবং আওয়ামীলীগ। এর কারন হলো- দেশে এত প্রভাবশালী ইসলামী ব্যাংক, সুদমুক্ত ব্যাংক থাকতে দিবে না তারা। বলা যায়, এটি ইহুদীবাদী ও হিন্দুবাদীদের চক্রান্ত- হাসিনার হাতে বাস্তবায়ন। একদিকে যখন লীগের মালিকানাধীন দেউলিয়া ব্যাংকগুলিতে সরকারী তহবিল দিয়ে টিকানোর চেষ্টা করছে সরকার, তখনই ইসলামী ব্যাংক হত্যা করছে তারাই।
 
Facebook Comments
Content Protection by DMCA.com

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.