সিনহার মত ওয়াহ্হাব মিয়ার পদত্যাপত্রও বানোয়াট!

ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নামে একটি পদত্যাগ পত্র রাষ্ট্রপতির কাছে জমা হয়েছে দাবী করছে সরকার। তবে সূত্র বলছে এ পদত্যাগ পত্রটিও আইন সচিব পিস্তল দুলালের কারসাজি- বানোয়াট।
 
গত নভেম্বরে প্রধান বিচারপতি সিনহার নামেও একটি পদত্যাগপত্রের কথা দাবী করেছিল সরকার। পরে সিনহার সে কথিত পদতাগপত্র আলো দেখেনি। অর্থাৎ সেটি ছিল বানোয়াট পত্র। বিডিপলিটিকোর এ সংক্রান্তে রিপোর্ট সত্য প্রমানিত হয়।
 
সিনহার নামে বানানো পদত্যাগপত্রে ৬/৭টি ভুল ছিল। আর এবারে ওয়াহাবের পদত্যাগপত্রটিও ভুলে ভরা। বানানে ভুল থাকার পাশাপাশি শব্দেও ভুল দেখা গেছে। তিন লাইন লেখায় ১০টি ভুল।
 
সুপ্রিম কোর্টের প্যাডে পাঠানো চিঠিতে গণপ্রজাতন্ত্রী শব্দটি লেখা হয়েছে ‘গনপ্রজাতন্ত্রী’। বঙ্গভবনকে এক শব্দ না লিখে আলাদা লেখা হয়েছে ‘বঙ্গ ভবন’। মহাত্মন লিখতে লেখা হয়েছে ‘মহাত্নন’। আর কারণবশতঃ লিখতে দুটি শব্দ লিখে বশতঃ লেখা হয়েছে ‘স’ ব্যবহার করে। কারণেও ব্যবহার করা হয়েছে ‘ন’। অনুগ্রহপূর্বক লিখতে দুটি শব্দ লেখা হয়েছে। গ্রহণ বানানে ‘ন’ ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়াও তিনি সুপ্রীম ও আপীল লেখা হয়েছে। যে শব্দ দুটি হবে যথাক্রমে সুপ্রিম ও আপিল। বিশ্বস্তকে লিখা হয় ‘বিশস্ত’।
 
প্রশ্ন হলো, এই সব দরখাস্ত লিখে কারা? এরা কি সরকারী কর্মচারী? নাকি লেখাপড়া জানা ছাড়া অশিক্ষিত হাটুতে বুদ্ধিঅলা আকবররা?
Facebook Comments

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.